পাখিদের বাসা ভাড়া ৩ লাখ টাকা

আমাবাগানের গাছে বাসা বেঁধে থাকা পাখিদের সুরক্ষার জন্য রাজশাহীর বাঘা উপজেলার ৫ আমবাগান মালিককে ৩ লাখ ১৩ হাজার টাকা করে দিচ্ছে বন বিভাগ।

 

জানা গেছে, ওই সকল বাগানে লুপ্ত প্রায় শামুকখোল পাখিরা বাসা বেঁধে আছে। এদের আবাসকে আরো সুরক্ষিত করে শামুকখোল পাখিদের প্রজাতি সংরক্ষনের জন্য সরকার এই পদক্ষেপ নিয়েছে। প্রদেয় অর্থকে ক্ষতিপূরণ হিসেবে দিচ্ছে সরকার।

 

শনিবার ২১ নভেম্বর বন বিভাগের পদস্থ কর্তারা এসব আম বাগান পরিদর্শন করেন। এসময় বন্য প্রাণী ও প্রকৃতি সংরক্ষণ অঞ্চল ঢাকার বন সংরক্ষক মিহির কুমার, রাজশাহী ডিএফও জিল্লুর রহমান, রাজশাহী সামাজিক বন বিভাগের সহকারী বন সংরক্ষক মেহেদীজ্জামান, বন্য প্রাণী ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ কর্মকর্তা রাহাত হোসেন, ওয়াইল্ড লাইফ রেঞ্জার হেলিম রায়হান ও বন্য প্রাণী পরিদর্শক জাহাঙ্গীর কবীর এসব বাগান পরিদর্শন করেন।

 

স্থানীয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে আমবাগানের মালিকেরা এসব অর্থ হাতে পাবেন।

 

পরিদর্শকরা বলছেন, এবার এসব পাখি কয়েক লক্ষ বাচ্চা ফুটিয়েছে।

 

উক্ত এলাকার একটি গাছ থেকে গত বছর পাখির বাসা ভেঙে দেয়া হলে স্থানীয় পাখিপ্রেমিরা প্রতিবাদ করেন। এবিষয়ে সংবাদ প্রকাশিত হলে রাজশাহীর এক আইনজীবীর আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত জেলা প্রশাসক ও ইউএনওকে এব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়ার জন্য আদেশ দেন। তার পরিপ্রেক্ষিতে এই কার্যক্রম নেয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *